কুড়িগ্রামদেশজুড়েনাগেশ্বরী

নাগেশ্বরীতে প্রতিমা ভাংচুরের প্রতিবাদে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন

নাগেশ্বরী প্রতিনিধি:
নাগেশ্বরীতে প্রতিমা ভাংচুরের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। শনিবার দুপুর ১২ টায় উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের সামনে কেবি সড়কে দাঁড়িয়ে তারা এ মানবন্ধন করে। এতে অংশগ্রহণ করেন হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রায় দুই শতাধিক পুরুষ মহিলা। বক্তব্য রাখেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উপজেলা সভাপতি মহেন্দ্র রায়, মধুসুদন রায়, বিনয় সেন প্রমুখ। বক্তারা এ ঘটনায় প্রকৃত দোসীদের খুজে বের করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানান।
জানা যায়, ১ নভেম্বর উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নে ৩ শতক জমির দখল নিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ইদ্রিস আলীর ছেলে শহীদুল্লাহসহ তার লোকজনের সাথে প্রতিবেশি নরেশ চন্দ্র রায়ের ছেলে মন্ত, তার জ্ঞাতীবর্গ ও ইউপি সদস্য হরেন রায়ের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে দুই পক্ষের কয়েকজন আহত হয়। এর কিছুক্ষণ পর মন্তের জেঠাতো ভাই তিলক চন্দ্রের পারিবারিক মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওইদিন সন্ধ্যায় মন্তের ভাই হরিশ চন্দ্র বাদী হয়ে শহীদুল্লাসহ ৭জনকে আসামী করে নাগেশ্বরী থানায় মামলা করেন। এ মামলায় এখনো জেলে আছেন শহিদুল্লাহ।
অপরদিকে প্রতিমা ভাংচুর ও জমি দখলের মিথ্যা মামলা দিয়ে সুনাম নষ্ট করায় মামলার বাদী ও ইউপি সদস্য হরেন রায়ের বিরুদ্ধে শুক্রবার সকাল ১১ টায় প্রেসক্লাব নাগেশ্বরী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলণ করেছে বিবাদীর পরিবার। এতে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান জমি ক্রেতা শহিদুল্লাহর বাবা হাসনাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ইদ্রিস আলী। এসময় তিনি বলেন তারা নন হরেন্দ্র নাথ নিজ হাতে প্রতিমা ভাংচুর করেছেন। পরবর্তীতে মিথ্যা মামলা দিয়ে সে এ এলাকার দীর্ঘদিনের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের পায়তারা চালাচ্ছে। সুনাম নষ্ট করছে তাদের।

এমন আরও সংবাদ

Leave a Reply

এছাড়াও এই নিউজ টা পরতে পারেন
Close
Back to top button