দেশজুড়ে

একই কাজ সমানতালে করলেও মজুরী বৈষম্যের শিকার হচ্ছে নারী শ্রমিকরা

মেহেদী হাসান উজ্জল, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) :
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে পুরোদমে শুরু হয়েছে বােরাে চারা রােপণের কাজ। পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও কাজ করছেন জমিতে। নারী ও পুরুষ শ্রমিক একই কাজ করলেও রয়েছে মজুরি বৈষম্য।
উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, উপজেলা জুড়ে পুরােদমে চলছে বােরা ধানের চারা রােপণ কাজ। নাওয়া খাওয়া ভুল যেনাে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে মাঠেই। তবে এ এলাকায় পুরুষ কৃষাণের চেয়ে বেশি সংখ্যায় রােপণ কাজ করছেন নারী কৃষাণীরা। দৈনিক মজুরিতে রােপণ কাজ করছেন তারা। তবে রয়েছে মজুরি বৈষম্য।
উপজেলার আলাদীপুর ইউনিয়নের বাসুদেবপুরের সূর্যপাড়া গ্রাম থেকে জমিতে কাজ করতে আসা আদিবাসী নারী শ্রমিক পুষ্প মার্ডি, বাহামনি মুর্মু, নির্মলা টুডু ও ইপিপিনা মার্ডি বলেন, কৃষি কাজ পুরুষের পাশাপাশী নারীরাও প্রত্যেক্ষ ও পরােক্ষভাবে জড়িত রয়েছেন। দুপুরের খাবার চলে সকালে বাড়িতে রান্না করে সাথে নিয়ে আসা খাবারে। পুরুষ কৃষাণের তুলনায় বেশি কাজ করেও মজুরি বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন তারা। তারা বলেন, একই কাজ সমান তালে করলেও তাদেরকে কেন পুরুষ শ্রমিকের চেয়ে মজুরী কম দেয়া হয়?

Durbar দূর্বার jute products পাট জাত পণ্য জে এম আলী নয়ন j m ali nayon
Floor Mat | Price: ৳1600
Size: 90cm | Click here
কৃষাণ জাবেদ খান বলন, তিনি সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত জমিতে কাজ করে তিনি প্রতিদিন ৪০০ টাকা করে দিন মজুরি পাচ্ছেন। নারীরা বাড়ির সব কাজ-কর্ম করে জমিতে দেরি করে আসার কারনে জমি মালিকরা তাদেরকে কম মজুরি দিচ্ছেন।

ট্যাগ
Back to top button
Close
Close