দেশজুড়ে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া’র আনসার ও ভিডিপ‘র জেলা কমান্ড্যান্ট মোঃ মাহবুবুর রহমান (পিএএমএস)-এর পরিচালক পদে পদোন্নতি লাভ

 গোলাম মোস্তফা রাঙ্গা।। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সুযোগ্য জেলা কমান্ড্যান্ট মোঃ মাহবুবুর রহমান (পিএএমএস)সহ আনসার বাহিনী ২৪জন বিসিএস কর্ম্কর্তা গত ০৬ সেপ্টেম্বর উপ-পরিচালক পদ হতে (জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ এর ৫ম গ্রেডে) বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর পরিচালক পদে পদোন্নতি লাভ করেন। মোঃ মাহবুবুর রহমান ১২ই ফেব্রুয়ারী ২০১৭ তারিখ সাহসিকতাপূর্ণ্ ও সেবামূলক কাজের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে প্রেসিডেন্ট আনসার পদক (পিএএম) পরিয়ে দেন। তিনি ২৫তম বিসিএস এর একজন সদস্য হিসাবে ২০০৬ সালের ২১ আগস্ট অত্র বাহিনীতে সহকারী জেলা অ্যাডজুট্যান্ট (স্পেশাল) হিসেবে যোগদান করেন। চাকরি জীবনে তিনি প্রথাগত দায়িত্বের পাশাপাশি ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাহিনীর উন্নয়নে গুরুত্বপূ্র্ণ্‌ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছেন। এছাড়াও বাহিনীর অপারেশনমূলক কার্যক্রম সফলতার সাথে সম্পন্ন করেছেন। তিনি অপারেশন উত্তরণের আওতায় পার্বত্য চট্টগ্রামে ০৩টি ব্যাটালিয়ন এবং সমতলে এলাকায় ০২টি ব্যাটালিয়নসহ সর্বমোট ০৫টি ব্যাটালিয়ন এবং ০৩ জেলা কমান্ড করেন। তিনি ২০১১ সালের ২১ ডিসেম্বর উপ-পরিচালক পদে পদোন্নতি লাভ করেন। জনাব মোঃ মাহবুবুর রহমান (পিএএমএস) ২০১২ সালের মাঝামাঝি সময়ে জেলা কমান্ড্যান্ট, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, রংপুর হিসেবে যোগদান করেন। সেখানেও তিনি উন্নয়নের স্বাক্ষর রেখেছেন। রংপুরে বাহিনীর নিজস্ব কোন জমি ছিল না। ব্যক্তিগত উদ্যোগে ৩৪.৫০ শতাংশ খাস জমি আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, রংপুরের নামে রেজিস্ট্রিকরণের কাজ সম্পন্ন করেন। যশোর জেলার কৃতি সন্ত্রান মোঃ মাহবুবুর রহমান (পিএএমএস), ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর তারিখে জেলা কমাড্যান্ট, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার দায়িত্বভার গ্রহণ করার পর হতে সরকারী নির্দেশে বিভিন্ন উন্নয়নমূল কাজ করেছেন। তিনি অত্র বাহিনীর বিভিন্ন প্রশিক্ষণ সফলতার সাথে সম্পন্ন করেছেন। ব্যক্তিগত জীবনে অত্যন্ত বিনয়ী এই কর্মকর্তা বিবাহিত এবং এক কন্যা সন্তানের জনক। তিনি দেশ ও বাহিনীর কল্যাণে কাজ করে যেতে চান।

এমন আরও সংবাদ

Close
Close