সুখবর প্রতিদিন

ঘাসেই মিললো কোটি টাকা!

কোটি টাকাফিচার ডেস্ক: ঘাসেই মিললো কোটি টাকা! শুনলে কেমন অবাক লাগে, তাই না? ভেবে থাকতে পারেন, মাঠ বা পথের ঘাসে হয়তো কোটি টাকা পাওয়া গেছে। আসলে কিন্তু তা নয়। আসল কথা হচ্ছে- ঘাস চাষ করেই কোটি টাকার মালিক হয়েছেন এক কৃষক। তার সন্ধান পাওয়া গেছে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগাড়ি ইউনিয়নের সুলতানপুর বাড়াইপাড়া গ্রামে। তার নাম আ. গফুর শেখ। অক্লান্ত পরিশ্রম করে নেপিয়ার জাতের ঘাস চাষে সফল হয়েছেন তিনি। তিনি জাতীয় স্বীকৃতিও পেয়েছেন। ২০১৪ সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার পেয়েছেন।

আ. গফুর জানান, ২০০৪ সালে পলাশবাড়ীর দুলু মিয়ার কাছে নেপিয়ার জাতের ঘাসের কথা শুনে চারা সংগ্রহ করে পাঁচ শতক জায়গায় লাগান। পাশাপাশি স্থানীয় সমিতি থেকে ৭ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে একটি গাভী কেনেন। এরপর গাভীটি একটি বাছুর দেয়। সেই ঘাস বড় হলে গাভীকে খাওয়ান। ফলে গাভীর দুধও বাড়তে থাকে। আবার ঘাস বিক্রি করেও টাকা পান।

এরপর আর থেমে থাকতে হয়নি। ২০ বিঘা জমিতে এই ঘাস চাষ করেন। এরমধ্যে ৮ বিঘা নিজের কেনা এবং ১২ বিঘা ইজারা নেওয়া। ঘাস চাষে একবিঘা জমিতে খরচ পড়ে প্রায় ১০ হাজার টাকা। প্রতিমাসে খরচ বাদে বিক্রি করে আয় হয় ১ লাখ টাকা!

এভাবেই ২০ শতক জমিতে আধাপাঁকা ঘর তৈরি করেন। খামারে আনেন উন্নত জাতের ২২টি গাভী। এরমধ্যে কয়েকটি গাভী দুধও দিচ্ছে। সেই দুধ বিক্রি করে আয় হচ্ছে। ঘাসের জমিতে পানি সেচের মেশিনও রয়েছে। পাশাপাশি হাঁস-মুরগি ও ছাগল পালন করেন।

তার এ কাজের জন্য কর্মচারি রয়েছে ৩ জন। তাদের প্রতিজনের মাসিক বেতন ৯ হাজার টাকা। তারা প্রতিদিন জমি থেকে ঘাস কেটে শহরের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে। এছাড়াও নিজস্ব সৌর বিদ্যুৎ, ২টি মোটরসাইকেল এবং ৫টি ভ্যান রয়েছে গফুরের।

ট্যাগ

এমন আরও সংবাদ

Close
Close