চিত্র বিচিত্র

সেই রাজা বাবুর ওজন এখন ৫২ মণ

গরুটির ওজন কয়েকদিন আগে পরিমাপ করা হয়েছে

রাজা বাবু
গত বছর রাজা বাবুর সঙ্গে পরিষ্কার বেগম ও মেয়ে ইতি। ফাইল ছবি

গত বছর কোরবানির ঈদে বিক্রি হয়নি মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার বরাইদ গ্রামের খামারি খাইরুল ইসলাম খান্নুর ফ্রিজিয়ান জাতের এই গরুটি। তখন এই গরুটির ওজন ছিল ৩৯ মণ। আর এক বছর পর গরুটির ওজন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫২ মণে। আসন্ন কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে গরুটির দাম চাওয়া হয়েছে ২২ লাখ টাকা।

খামারি খাইরুল ইসলামের দাবি, এটাই দেশের সবচেয়ে বড় গরু। গরুটির নাম রাজা বাবু।

সাটুরিয়া উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. সেলিম জাহান জানান, গরুটির ওজন কয়েকদিন আগে পরিমাপ করা হয়েছে। গরুটির ওজন দুই হাজার ৯৪ কেজি। এ ছাড়া গরুটির উচ্চতা সাড়ে ছয় ফুট।
গত বছর রাজা বাবুর সঙ্গে পরিষ্কার বেগম ও মেয়ে ইতি। ফাইল ছবি

জানা গেছে, দুই বছর আগে ফিজিয়ান জাতের ষাঁড়টি কিনে আনেন খায়রুল ইসলাম। তার স্ত্রী পরিষ্কার বেগম ও মেয়ে ইতি সাদা-কালো রঙের গরুটির তখন থেকে যত্ন নেওয়া শুরু করেন। ইতিই গরুটির নাম রাজা বাবু রাখেন।

গত বছর গরুটির ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় গরুটি বিক্রি করা হয়নি। এ বছর কোরবানিতে বিশালাকৃতির এই গরুটি বিক্রি হবে বলে আশা করছেন খাইরুল ইসলামের পরিবার।

ট্যাগ
Close
Close